Wednesday, September 28, 2022

‘আমার সঙ্গে কথা বলবেন না!’, সংসদে স্মৃতি ইরানের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যেই ফুঁসে উঠলেন সোনিয়া

সংবাদ সংস্থা, নতুন দিল্লি : রাষ্ট্রপতিকে ঘিরে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে বিপাকে কংগ্রেস। লোকসভার সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী রাষ্ট্রপতির জায়গায় দ্রৌপদী মুর্মুকে রাষ্ট্রপত্নী বলে উল্লেখ করেন। এরপরই বিতর্ক শুরু হয়।কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুকে রাষ্ট্রপত্নী বলে সম্বোধন করা নিয়ে এদিন সংসদে একটি নাটকীয় সংঘর্ষে, কংগ্রেস সভাপতি সনিয়া গান্ধী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে প্রত্যাখ্যান করেছেন বলে জানা গেছে।

এদিন সংসদে অধিবেশন শুরু হতেই অধীরের মন্তব্যের সমালোচনা করে প্রতিবাদে সরব হন স্মৃতি ইরানি। তিনি কংগ্রেস নেত্রী সনিয়া গান্ধীকেই নিশানা করে বলেন, ‘সনিয়া গান্ধী, আপনি দেশের সর্বোচ্চ সাংবিধানিক পদে থাকা একজন মহিলাকে অপমান করার অনুমতি দিয়েছেন। আপনাকে ক্ষমা চাইতেই হবে।’ বিজেপি সাংসদদের বিক্ষোভের মাঝেই কংগ্রেস সভাপতিকে উঠে এক বিজেপি সাংসদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করতেও দেখা যায়। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি মাঝে বাধা দিলে, তিনি কঠোর স্বরে বলেন, ‘আমার সঙ্গে কথা বলবেন না’।

বিক্ষোভের জেরে সংসদ মুলতুবি হয়ে যেতেই লোকসভা ছেড়ে বেরিয়ে আসেন সনিয়া গান্ধী। এদিন এই মন্তব্যের কংগ্রেসকে ক্ষমা চাইতে হবে এহেন দাবি তুলে লোকসভায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে বিজেপি। তালিকায় স্মৃতি ইরানি ও নির্মলা সীতারমণও ছিলেন। এর জেরে বেলা ১২ টা পর্যন্ত লোকসভার অধিবেশন মুলতুবি হয়ে যায়। একই দাবিতে সংসদের বাইরেও বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বিজেপি নেতৃত্ব।অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ বলেন, ‘অধীর চৌধুরির এহেন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সনিয়া গান্ধীর উচিত দেশ ও দেশের রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাওয়া।’

Latest Updates

RELATED UPDATES