Wednesday, September 28, 2022

করিমগঞ্জে লোক কল্যাণ দিবসে হিরন্ময় রায় ও অসিত দত্তকে লোকসেবা পুরস্কার প্রদান

জনসংযোগ, করিমগঞ্জ, ৫ আগস্ট: করিমগঞ্জে লোকপ্রিয় গোপীনাথ বরদলৈর মৃত্যুবার্ষিকী ৫ আগস্ট, শুক্রবার লোক কল্যাণ দিবস হিসেবে পালন করা হয়েছে। এই দিবস পালনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে রাজ্য সরকার থেকে ঘোষিত এবছর থেকে প্রথমবারের জন্য চালু হওয়া নন গেজেটেড তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের সততা, নিষ্ঠা ও অনবদ্য কাজের অবদানের জন্য লোক সেবা পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। এতে করিমগঞ্জে এই লোক সেবা পুরস্কার জেলাশাসক কার্যালয়ের সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট হিরন্ময় রায় ও স্কুল সমূহের পরিদর্শক কার্যালয়ের স্ট্যাটিস্টিকাল অ্যাসিস্ট্যান্ট অসিত দত্তকে প্রদান করা হয়।

এ উপলক্ষে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১ টায় করিমগঞ্জের রবীন্দ্রসদন মহিলা মহাবিদ্যালয়ের সভাকক্ষে জেলাশাসক মৃদুল যাদবের পৌরহিত্যে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলাশাসক জানান যে রাজ্য সরকার থেকে ঘোষিত লোকপ্রিয় গোপীনাথ বরদলৈর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে লোক কল্যাণ দিবস পালনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে রাজ্যের প্রতিটি জেলা এবং রাজ্য স্তরে লোক সেবা পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। এতে তিনি জানান যে নন গেজেটেড তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী যারা তাদের কর্ম ক্ষেত্রে সততা ও নিষ্ঠা সহকারে অনবদ্য অবদান রেখেছেন তাদেরকে এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে। এর মধ্যে রাজ্যের সব কয়টি জেলায় ৮৯ জনকে এবং রাজ্য স্তরে ১০ জনকে এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে।

যার মধ্যে করিমগঞ্জে দুইজনকে এই পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। এতে নগদ অর্থ হিসেবে ২৫ হাজার টাকা এবং চাকরির অবসরের সীমা এক বছর বাড়ানো হয়েছে।

অনুষ্ঠানে লোকপ্রিয় গোপীনাথ বরদলৈর জীবন আদর্শ নিয়ে আলোচনা করেন করিমগঞ্জ কলেজের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর মনোলিনা নন্দী। তিনি আসামের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী গোপীনাথ বরদলৈর কর্মজীবন, গান্ধীজীর আহ্বানে অসহযোগ আন্দোলনের যোগদান। বহিরাগতদের খাজনা প্রদান বন্ধ করা, আফিম চাষ বন্ধ করা। গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠা, পৌর বোর্ড গঠন, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন ইত্যাদি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অবদান সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

তিনি জানান যে ১৯৯৯ সালে যখন কেন্দ্রে অটলবিহারী বাজপেয়ীর সরকার ছিল তখন গোপীনাথ বরদলৈকে ভারতরত্ন প্রদান করা হয়। এতে তিনি উল্লেখ করেন যে গোপীনাথ বরদলৈ খুব সহজ সরল এবং জনগণের সেবায় নিজেকে সব সময় নিয়োজিত রাখতেন। তাই তিনি জনগণের অতিপ্রিয় ছিলেন এবং লোকপ্রিয় হিসেবে ভূষিত হন।

সভায় আসাম রাজ্য পরিবহন নিগমের অধ্যক্ষ মিশন রঞ্জন দাস গোপীনাথ বরদলৈর কর্মকালে আসাম নতুন রূপ পেতে শুরু করে বলে উল্লেখ করেন। এবং তার কর্মজীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি রাজ্য সরকার থেকে এই লোক সেবা পুরস্কার প্রদান শুরু হওয়ায সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং বলেন যে এই পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করা কর্মীদের তাদের কাজের সঠিক মর্যাদা প্রদান এবং উৎসাহ বৃদ্ধি পাবে।

সভায় লোক সেবা পুরস্কার প্রাপক অসিত দত্ত বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে এই পুরস্কার প্রদানের জন্য রাজ্য সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এতে তিনি বলেন যে এই পুরস্কার প্রদান শুরু হওয়ায় জনগণের সঠিক সেবা প্রদান করতে কর্মচারীদের মধ্যে উৎসাহ বৃদ্ধি পাবে।

এদিন এই পুরস্কার প্রাপক হিরণ্ময় রায় তার অসুস্থতার জন্য উন্নত চিকিৎসার কারণে জেলার বাইরে থাকায় তার সহধর্মিনী এই পুরস্কার গ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন করিমগঞ্জের এস সি বোর্ডের চেয়ারম্যান কৃষ্ণ দাস, এডিসি জেমস আইন্ড ও রিন্টু বড়ো, অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার বিক্রম চাষা, দীনদয়াল মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষা জয়শ্রী চক্রবর্তী , জেলাশাসক কার্যালয়ের কর্মচারীরা সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধি। এদিনের অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন করিমগঞ্জের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার বহ্নিকা চেতিয়া।

Latest Updates

RELATED UPDATES