Monday, October 3, 2022

বন্যায় প্রশাসন থেকে তৈরি করা ক্ষয়ক্ষতির তালিকার সত্যতা যাচাই করতে মন্ত্রী বিমল বরার নেতৃত্বে ভেরিফিকেশন টিম করিমগঞ্জে

জনসংযোগ, করিমগঞ্জ, ২৪ জুলাই: সাম্প্রতিক বন্যায় করিমগঞ্জ জেলার চারটি রাজস্ব চক্রে ক্ষয়ক্ষতির তালিকা জেলা প্রশাসন থেকে ইতিমধ্যে প্রস্তুত করা হয়েছে। এই তালিকার সত্যতা যাচাই করার জন্য রাজ্যের শিল্প ও বাণিজ্য এবং সাংস্কৃতিক পরিক্রমা বিভাগের মন্ত্রী বিমলবরার নেতৃত্বে ৫০ জনের একটি টিম রবিবার করিমগঞ্জ এসে পৌঁছেছে। এই টিমের কর্ম প্রক্রিয়া সুচারুভাবে পরিচালনা করতে এতে রাজ্যের অ্যাক্ট ইস্ট পলিসি বিভাগ ও আসাম শিল্প উন্নয়ন করপোরেশনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মানবেন্দ্র প্রতাপ সিং মন্ত্রীর সহায়ক হিসাবে রয়েছেন। সোমবার থেকে এই টিমগুলি রাজস্ব চক্র এলাকায় ক্ষয়ক্ষতির তালিকা সাথে ২০ শতাংশ সরজমিনে সত্যতা যাচাই করবে।

এই উদ্দেশ্যে রবিবার সন্ধ্যায় মন্ত্রী বিমল বরার সভাপতিত্বে জেলাশাসক কার্যালয়ের সভাপক্ষে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে রাজ্যের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত শিল্প ও বাণিজ্য এবং সাংস্কৃতিক পরিক্রমা বিভাগের আধিকারিক ও কর্মচারীদের টিম গঠন করে সত্যতা যাচাই করার এস ও পি এবং করণীয় বিষয়গুলি জানিয়ে দিয়ে দায়িত্বসমঝে দেন ম্যানেজিং ডিরেক্টর মানবেন্দ্র প্রতাপ সিং।

এতে জেলাশাসক মৃদুল যাদব জানান যে এবারের বন্যায় জেলা প্রশাসন থেকে জেলায় চারটি রাজস্ব চক্র করিমগঞ্জ সদর, বদরপুর, নিলাম বাজার ও রামকৃষ্ণনগরে সরজমিনে সমীক্ষা করে ক্ষয়ক্ষতির তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে।

যার মধ্যে সম্পূর্ণভাবে নষ্ট হয়ে যাওয়া ৪৬ টি কাঁচা ঘর এবং আংশিকভাবে নষ্ট হওয়া ২০৫১০ টি কাঁচা ঘর এবং ৭৩৪১ টি পাকা ঘর রয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রস্তুত করা ক্ষয়ক্ষতির এই তালিকা গুলির সত্যতা যাচাই করতে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই টিম করিমগঞ্জে এসেছে এবং ২৮ জুলাই পর্যন্ত সত্যতা যাচাই চলবে।

উল্লেখ্য বন্যায় সম্পূর্ণভাবে নষ্ট হওয়া ঘর গুলির জন্য ৯৫ হাজার ১০০ টাকা আংশিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত কাঁচা ঘরগুলিকে ৩২০০ টাকা এবং আংশিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত পাকা ঘরগুলির জন্য ৫২০০ টাকা সহায়তা রাশি রাজ্য সরকার থেকে মঞ্জুর করা হয়েছে।

এদিনের সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উত্তর করিমগঞ্জের বিধায়ক কমলক্ষ দে পুরকায়স্থ ও পাথারকান্দির বিধায়ক কৃষ্ণেন্দু পাল উপস্থিত ছিলেন।।

Latest Updates

RELATED UPDATES