Wednesday, September 28, 2022

বন্যা পরবর্তী মহামারীর প্রকোপ থেকে বাঁচাতে সবাইকে সচেতন থাকার পরামর্শ

করিমগঞ্জ : করিমগঞ্জ কেমিস্টস এন্ড ড্রাগিস্টস এসোসিয়েশনের ব্যাবস্থাপনায় দ্বিতীয় বিনামূল্যে স্বাস্থ্য শিবিরের আয়োজন।

বন্যা পরবর্তী আসন্ন মহামারীর দুর্যোগ থেকে স্থানীয় জনসাধারণকে সচেতন করতে এবং অসুস্থদের জন্য স্বাস্থ্য পরিষেবার লক্ষ্যে পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী,আজ অর্থাৎ ১৭/৭/২১ ইং তারিখে সুপ্রাকান্দির পল্লী মঙ্গল জুনিয়র কলেজে করিমগঞ্জ কেমিস্টস এন্ড ড্রাগিস্টস এসোসিয়েশনের ব্যাবস্থাপনায় এবং জেলা স্বাস্থ্য সমিতির সমিতির সহযোগিতায়  এক বৃহৎ বিনামূল্যে স্বাস্থ্য শিবিরের আয়োজন করা হয়।

এই  স্বাস্থ্য শিবিরের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলার যুগ্মসঞ্চালক শামসুল আলম মহাশয়।এই শিবিরের  প্রারম্ভে সচেতনতা সভায় তিনি বন্যা পরবর্তী আসন্ন মহামারীর প্রকোপ থেকে রক্ষার নানান উপায় জনসমক্ষে তুলে ধরেন।

পানীয় জল কমকরে ২০ মিনিট ভালো ফুটিয়ে পান করার জন্যে তিনি অনুরোধ করেন। রোটারি ক্লাব কর্তৃক আজ এই শিবির জল বিশুদ্ধ করার ঔষধ বিতরণ করা হবে।প্রতি ১৫ লিটার জলে একটি টেবলেট দিয়ে এই জল ও পান করার জন্যে তিনি আবেদন করেন। বন্যা পরবর্তীতে যে রোগের প্রাদুর্ভাব বেশি হয় সেগুলো তিনি জনসমক্ষে তুলে ধরেন। পূর্বে কলেরা  মহামারীর রোগে অনেক গ্রাম প্রায় জনশূন্য হয়ে যেত। এখনো অনেক লোক সচেতনতার অভাবে এই রোগে মৃত্যু পথযাত্রী হন।এই রোগের শুরুতেই স্থানীয় হাসপাতাল বা প্রাইমারি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা করানো জন্যে উপদেশ দেন। কলেরা বা পেটের রোগে ORS পাউডার জলসমেত ঘনঘন পান করার জন্য বলেন। এবং নিয়মানুযায়ী প্রতি ১ লিটার জলে এক পেকেট ORS পাউডার ভালো করে মিশিয়ে পান করার জন্যে অনুরোধ রাখেন। ম্যালেরিয়া ,ডেঙ্গূ বা মশাজনিত যে কোন রোগকে প্রতিরোধ করার জন্যে মশারী নিয়মিত ব্যবহার করার জন্যে উপদেশ দেন আক্রান্ত রোগীকে তৎক্ষণাৎ চিকিৎসা করানোর পরামর্শ দেন,যাতে এই জেলাতে কোন‌ লোকের অকাল মৃত্যু না হয়।
       

প্রতিটি জনসাধারণকে নিজস্ব গৃহে কোন গর্ভধারিনী মার প্রসব না করানোর অনুরোধ রাখেন।আগে এই প্রসব প্রক্রিয়ার মাও সন্তান উভয় ই  মৃত্যু পথযাত্রী হত।তাই সমস্ত জনসাধারণকে নির্দিষ্ট সময়ে স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়ার ও চিকিৎসা করানোর জন্য অনুরোধ রাখেন।
           

কোভিড রোগ প্রতিরোধে প্রতিটি জনসাধারণকে  দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ডোজ টীকা নেওয়ার পরামর্শ দেন। বর্তমান দ্বিতীয় ডোজ থেকে ৬ মাস পরেই এই টীকা নিতে পারবেন। জেলার প্রতিটি অঞ্চলে নির্দিষ্ট তারিখে বিনামূল্যে টীকা কেন্দ্র খোলা হবে।যুগ্মসঞ্চালকের উপদেশ কে পালন করার জন্যে স্থানীয় জনসাধারণকে আবেদন জানান এসোসিয়েশনের বরিস্ট ব্যাক্তিত্ব শ্রী স্বপন কুমার ঘোষ মহাশয়।
        

কেমিস্টস এন্ড ড্রাগিস্টস এসোসিয়েশনের
সভাপতি তারা কিশোর বাবু তাদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্য শিবিরের সঙ্গে ‌এই সচেতনতা সভার উদ্দেশ্য ব্যাক্ত করেন । যেকোন  মহামারী অতি সহজে মানুষের মধ্যে সংক্রমক হয় এবং মূল্যবান প্রাণ ও সমাজের আর্থিক হানি হয়। তাই সকল জনসাধারণকে রোগ প্রতিরোধে সচেষ্ট হওয়ার জন্যে অনুরোধ করেন।
     

আজকের এই শিবির মোট ৩৪৯ জন রোগীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয় এবং তাৎক্ষনিক নানা পরীক্ষা করে বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ করা হয়।
        

শান্তিপূর্ণ ভাবে এই শিবির পরিচালন সম্পন্ন হওয়ায়  চিকিৎসক, স্বাস্থ্য পরিষেবার কর্মচারীবৃন্দ, এসোসিয়েশন কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনসাধারণকে  ধন্যবাদ  জানান এসোসিয়েশনের সভাপতি।

Latest Updates

RELATED UPDATES