Thursday, September 29, 2022

বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনে শিক্ষা মন্ত্রী রনজ পেগু

অসীম রায়, লক্ষীপুর : শনিবার লক্ষীপুর বিধানসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করলেন রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী রনজ পেগু । এর ভিতর শিক্ষা মন্ত্রীর হাত ধরেই রবিবার ৯-৩০টায় চিরিপুল সংলগ্ন ৩৭ নং জাতীয় সড়কের পাশে আনুষ্ঠানিক ভাবে লক্ষীপুর আইন কলেজের নতুন ভবনের শিলান্যাস করা হয় ।

উক্ত আইন কলেজ নির্মানের জন্য সরকারি তহবিল থেকে ১৫ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা মঞ্জুর করা হয় । আসামে নতুন ৯ টি আইন কলেজের মধ্যে বরাক উপত্যকার লক্ষীপুরে একটি নির্মান করা হবে । রাজ্যে সরকারি আইন কলেজ পূর্বে হাতে গোনা কয়টি ছিল । তাই ছাত্র ছাত্রীদের আইন বিষয়ে শিক্ষা নিতে হলে সরকারি আইন কলেজের অভাব দেখা দেওয়ায় সরকার এবারে রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে নতুন করে ৯ টি আইন কলেজ নির্মান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে । এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আজ ৯টির মধ্য একটি লক্ষীপুরে শিলান্যাস করা হয় । এভাবেই এই কথা গুলি বলেন রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী রনজ পেগু ।

তিনি আরো বলেন আগামীতে প্রতিটি কলেজে আর্ট ,সাইন্স ও কমার্স বিষয় নিয়ে শিক্ষা দান করা হবে । তবে প্রতিটি কলেজে একসাথে তিনটি বিষয়ে শিক্ষাদানের ব্যবস্থা করতে একটু সময় লাগবে । আগামী ২২৩০ সালের আগে তাহা সম্ভব হবে না । শিক্ষা বিষয়ে সরকারের অনেক পরিকল্পনা রয়েছে তাহা বাস্তবে রূপ দেওয়ার জন্য মূখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ।

রাজ্যে বিঞ্জান বিষয়ে নিয়ে ছাত্র ছাত্রীরা পড়াশোনা করতে ভয় করে । রাজ্যে ১০০ জন ছাত্র ছাত্রী দের মধ্যে মাত্র ১৪ জন সাইন্স নিয়ে পড়াশোনা করে । অনেক কলেজ থেকে সরকারের কাছে দাবি জানানো হয় তাদের কলেজে সাইন্স বিষয় চালু করার জন্য । কিন্তু সাইন্স বিষয় চালু হলে ছাত্রের অভাব দেখা দেবে তাই প্রতিটি স্কুলের ছাত্র ছাত্রীরা যখন ভাল করে সাইন্স বিষয়ে জোড় দিয়ে হবে ।

স্কুল গুলি থেকে ছাত্র ছাত্রীরা গুলি থেকে সাইন্সেস ছাত্র ছাত্রীরা রেল হয়ে আসলেই কলেজ গুলিতে সাইন্স বিভাগ চালু হলে ভাল হয় । বিধায়ক কৌশিক রায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন আজ লক্ষীপুরে যে আইন কলেজের শিলান্যাস করা হয় তাহার পেছনে মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা ও শিক্ষা মন্ত্রী রনজ পেগুর হাত রয়েছে ।

তাদের জন্য লক্ষীপুরে আজ আইন কলেজের শিলান্যাস করা সম্ভব হয়েছে । তিনি শিক্ষামন্ত্রী রনজ পেগুর কাছে লক্ষীপুরে একটি ডিগ্রী কলেজ স্হাপন করার দাবি তুলে ধরেন । সেই সাথে নেহেরু কলেজে সাইন্স বিষয়ে শিক্ষা দান চালু করা এবং নেহেরু হায়ার সেকেন্ডারি স্কুলে আর্ট বিষয়ে শিক্ষা দান চালু করার দাবি তুলে ধরেন বিধায়ক কৌশিক ।

তিনি আরো বলেন লক্ষীপুর বিধানসভায় পূর্বে তিনটি হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল ছিল বর্তমানে আরো তিনটি হাইস্কুল কে হায়ার সেকেন্ডারি স্কুলের উন্নত করা হয়েছে । এই তিনটি স্কুলের মধ্যে রয়েছে জগাই মথুরা হাইস্কুল , রানিপুর হাইস্কুল ও পালোরবন্দ গার্ডেন হাইস্কুল কে হায়ার সেকেন্ডারি স্কুলে উন্নত করা হয়েছে ।

রবিবার মন্ত্রী রনজ পেগু প্রথমে পয়লাপুল তারিনীগঞ্জ এর পি স্কুলে গুন‌উৎসব উপলক্ষে উপস্থিত হয়ে ছাত্র ছাত্রীদের মধ্য শিক্ষা বিষয়ে জেনে নেন । তারপর তিনি ফুলেরতল ইউনিয়ন হাইস্কুল এবং লক্ষীপুর এস এম দেব কলেজে পরিদর্শন করেন ।

শেষে লক্ষীপুর বিধানসভার বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষকদের উপস্হিতিতে ফুলেরতল মাল্টিপারপাস হলে এক সভা করেন । উক্ত সভায় শিক্ষক মন্ডলী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন লক্ষীপুরের বিধায়ক কৌশিক রায় , জেলাশাসক রহন কুমার ঝা , মনিপুরী উন্নয়ন পরিষদের সভানেত্রী রীনা সিংহ ,পূর্ত বিভাগের ইঞ্জিনিয়ার মধুমিতা দে ও ভূপেন করিয়া , স্কুল পরিদর্শক সাবিনা ইয়াসমিনারা রহমান , লক্ষীপুরের মহকুমাশাসক সুদীপ নাথ , আইনজীবী সঞ্জয় কুমার ঠাকুর , পয়লাপুল নেহেরু কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ পূর্ণেন্দু কুমার , লক্ষীপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান মৃনাল কান্তি দাস সহ

Latest Updates

RELATED UPDATES