ASSAM

বিদ্যুতের অস্বাভাবিক মাশুল বৃদ্ধিতে বিরুবাড়িতে প্রতিবাদ সভা

গুয়াহাটি : বিদ্যুতের অস্বাভাবিক মাশুল বৃদ্ধি, প্রিপেড স্মার্ট মিটার সহ নানা সমস্যার বিরুদ্ধে অল আসাম ইলেকট্রিসিটি কনজিউমার্স অ্যাসোসিয়েশনের কামরূপ মহানগর ইউনিট উদ্যোগে রবিবার বিরুবাড়ির আসাম ভ্যালি ইংলিশ স্কুলে এক নাগরিক সভা অনুষ্ঠিত হয়৷

বৃহত্তর বিরুবাড়ি অঞ্চলের নাগরিকদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত নাগরিক সভা পরিচালনা করেন বিদ্যুৎ শ্রমিক নেতা দেবেন কলিতা৷ সভায় বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষক খগেন নাথ ও অল আসাম ইলেকট্রিসিটি কনজিউমার্স অ্যাসোসিয়েশনের রাজ্য কমিটির অন্যতম আহ্বায়ক অজয় ভট্টাচার্য৷

খগেন নাথ তাঁর বক্তব্যে বিদ্যুৎ গ্রাহকরা বর্তমানে যে সব সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন তার উল্লেখ করে শক্তিশালী গ্রাহক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান৷

সভায় প্রধান বক্তা অজয় ভট্টাচার্য বলেন, বিদ্যুতের মাশুল বৃদ্ধি জনগণের জীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে৷ অন্যদিকে, প্রিপেড স্মার্ট মিটার মানুষকে আতঙ্কিত করে রেখেছে৷

তিনি বলেন, প্রিপেড মিটার গ্রাহকদের স্বার্থে নয়, কর্পোরেট গোষ্ঠীর স্বার্থে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে৷ প্রিপেড মিটার বিদ্যুৎকে পরোক্ষভাবে পরিষেবা থেকে পণ্যে রূপান্তরিত করেছে৷ এবং বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থাকে বেসরকারিকরণের দিকে ঠেলে দিচ্ছে৷

তিনি এও বলেন, প্রিপেড মিটার গ্রাহকদের বিদ্যুতের খরচ অভাবনীয় হারে বৃদ্ধি করেছে এবং এপিডিসিএল এক ভয়ংকর লুন্ঠন চালিয়ে যাচ্ছে৷ অথচ সরকারের নেতা-মন্ত্রীরা যা তা মন্তব্য করে বিষয়টিকে হাল্কা করে জনগণের দৃষ্টি অন্যদিকে ঘুরিয়ে দিতে চাইছেন৷ তিনি সরকারের এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রাজ্যব্যাপী শক্তিশালী বিদ্যুৎ গ্রাহক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান৷

এদিনের নাগরিক সভায় দেবেন কলিতা, খগেন নাথ ও হিমালী বড়োকে আহ্বায়ক মনোনীত করে বিরুবাড়ি আঞ্চলিক বিদ্যুৎ গ্রাহক সমিতি গঠন করা হয়৷

Show More

Related Articles

Back to top button